তেঁতুল উচ্চ রক্তচাপ-হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়

 

টক স্বাদের তেঁতুল ফলে রয়েছে নানা ধরনের পুষ্টিগুণ। একসময় শুধুমাত্র দক্ষিন এশিয়ার দেশগুলোতে এটি পাওয়া যেত। এখন বিশ্বের অনেক দেশেই তেঁতুলের চাষ হয়। প্রাচীন কাল থেকেই এটি চিকিৎসা ও রান্নার কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

তেঁতুলে প্রচুর পরিমানে আঁশ রয়েছে। এ কারণে এটি হজমে সাহায্য করে এবং কোষ্টকাঠিন্য কমায়। এটা পেটের নানা ধরনের অসুখের জন্যও বেশ উপকারী। তেঁতুলের বীজ ডায়রিয়া এবং আমাশয় সারাতে কাজে লাগে।

তেঁতুলে থাকা টারটারিক এসিড দারুন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। এটি শরীর থেকে টক্সিন বের করে দেয়। ক্যান্সারেরও ঝুঁকি কমায়।

তেঁতুলে থাকা পটাশিয়াম উচ্চ রক্তচাপ এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। এ কারণে যাদের উচ্চ রক্তচাপ আছে তারা তেঁতুলের জুস করেও খেতে পারেন। এতে থাকা আয়রন শরীরে লোহিত রক্তকণিকা তৈরিতে ভূমিকা রাখে।

তেঁতুল প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ থাকে -যা দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সাহায্য করে। চোখে শুষ্কতা দেখা দিলে এটি তা প্রতিরোধ করতেও ভূমিকা রাখে।

তেঁতুল দারুন প্রতিষেধক। এটি স্কার্ভি নামক চর্মরোগ, সর্দি-কাশি এবং যেকোন ধরনের সংক্রমন সারাতে বেশ কার্যকরী । এটি শরীরের প্রতিরক্ষা শক্তিশালী করে এবং জ্বর সারাতেও ভূমিকা রাখে।

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকা যেকোন ফল ত্বকের জন্য উপকারী। তেঁতুলও এর ব্যতিক্রম নয়। এছাড়া সামান্য পোড়া কিংবা ত্বকের যেকোন ধরনের সংক্রমণ সারাতেও এটি কাজ করে।