বায়োএনার্জেটিক হেলথ ব্রেসলেট ব্যবহারের


বায়োএনার্জেটিক
হেলথ ব্রেসলেট ব্যবহারের প্রভাবঃ

প্রারম্ভিকাঃ

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে প্রথাগত বা তথ্য প্রমান ভিত্তিক ডাক্তারী চিকিৎসা পদ্ধতির পাশাপাশি নব নব চিকিৎসা পদ্ধতি উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে্‌ তবে নতুন চিকিৎসাপদ্ধতিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কার্যকর ব্যবহারে সহজ এবংপ্রমাণিত পদ্ধতি হচ্ছে- চুম্বকীয় আবেশ (Magnetic Ions)এবং ঋণাত্মক আবেশ (Negative Ions) সমৃদ্ধ উপাদানেরব্যবহার। এধরণের উপাদানের ব্যবহার প্রাথমিকভাবে ছোটখাটো অসুস্থতাকে সারিয়ে আমাদের শরীরকে যেমনি উদ্যমশীল করতে সক্ষম, তেমনি সুস্থ্য অবস্থায় ব্যবহার শুরু করলে অনেক ধরণের কঠিনরোগ থেকে ঝুঁকি এড়ানো সম্ভব।

বর্তমান বিশ্ব স্বাস্থ্য: চিকিৎসা বিজ্ঞানের ইতিহাস হতে জানা যায়, খৃ: পূর্ব ২০০০ বৎসর পূর্বেচীনারা সর্বপ্রথম মানবদেহের বিভিন্ন চিকিৎসায় ম্যাগনেটিক থেরাপীর ব্যবহার শুরু করেন।বর্তমানের সারা পৃথিবীতে ১০০ মিলিয়নেরও বেশী লোক রোগের উপশমের জন্য ম্যাগনেটিকখেরাপী ব্যবহার করছে। এদের মধ্যে চীনা, জাপানীজ, কোরিয়ানরাই প্রায় ৬০ মিলিয়ন। যারফলে এতদ্অঞ্চলে পৃথিবীর অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় মানুষ কম রোগাক্রান্ত হচ্ছে।

বায়োএনার্জেটিক হেলথ ব্রেসলেটে ৪টি উপাদান রয়েছে

চুম্বকীয় আবেশ (Magnetic Ions)

ঋণাত্মক আবেশ (Negative Ions)

সূর্যের দূর অদৃশ্য লালরশ্মি (Far-Infra-red Rays)

জার্মেনিয়াম (Germanium) 

ষ্টেইনলেস ষ্টিল ৩১৬ মেটাল (Stainless Steel 316 Metal) সমৃদ্ধ উপাদান দ্বারা এটি তৈরী-যার গুনাগুন পরবর্তী দীর্ঘদিনেও অক্ষুন্ন থাকবে। ব্রেসলেটের মডেল কিংবা আকার আকৃতিভিন্নতর হলেও এর কার্যকারিতা একই।কারণ প্রতিটি ব্রেসলেট-এ নিয়োডাইমিয়াম চুম্বকেরপরিমান ২৫০০-৩০০০ গস(জি)। চুম্বক (Magnet): চুম্বক ভিন্ন ভিন্ন ধরনের উপাদান দিয়েতৈরী হলেও চিকিৎসা থেরাপীতে ব্যবহৃত প্রধান দুই ধরনের চুম্বক হচ্ছে ফেরিট বা সিরামিকচুম্বক এবং নিয়োডাইমিয়াম চুম্বক।

“Magnetic Energy has a beneficial effect on blood circulation, lymph flow, hormone production, nerves and muscles.”

থেরাপী চুম্বকের কর্মকৌশল: আমাদের রক্তের একটিউপাদান হচ্ছে- লোহিত কণিকা, এই লৌহ উপাদান থাকারকারনে রক্ত একটি চুম্বকীয় শক্তির পরিবাহীর মত আচরণকরে। এক্ষেত্রে স্থির চুম্বক (Magnetic Ions) শরীরের সাথেসরাসরি চামড়ার উপর উপস্থাপন করলে, এটি শরীরেররক্ত প্রবাহ বাড়িয়ে দেয়।ফলে রক্তে অক্সিজেন বৃদ্ধি পায়এবং শরীরের বিভিন্ন টিস্যু বা কলা পুষ্টি লাভ করে।পক্ষান্তরে, বৈদ্যুতিক চুম্বকের (Electromagnetic) থেরাপীদ্রুত ফলদায়ক হলেও এর ক্রিয়াকাল সাময়িক।

নেগেটিভ আয়নের কর্মকৌশল:মূলতঃ নেগেটিভআয়নের তুলনায় পজেটিভ আয়নের আধিক্যই মানুষেরশারীরিক অসুস্থতার একটি উল্লেখযোগ্য কারণ। এক্ষেত্রেনেগেটিভ আয়ন ব্যবহার করলে, নেগেটিভ আয়নের শক্তিচামড়া ভেদ করে শরীরে প্রবেশ করে এবং শারীরিকঅসুস্থতার জন্য দায়ী পজেটিভ আয়নগুলোকে ভেঙ্গে ফেলেরোগ প্রতিরোধক অবস্থার সৃষ্টি করে।এক্ষেত্রে নেগেটিভআয়নের মুল কাজ হচ্ছে- শরীরের আভ্যন্তরীণ জৈব বিদ্যুৎপ্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করে শরীরকে সুস্থ রাখা।

দূর অদৃশ্য লোহিত রশ্মি কর্মকৌশল: দূর অদৃশ্যলোহিত রশ্মি প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- এই রশ্মি খুব সহজেশরীরের কোষ বা টিস্যু ভেদ করতে সক্ষম।যার ফলেমানুষের শরীরে প্রাকৃতিক প্রতিফলনের সৃষ্টি হয়- যারঅনেক উপকারী বৈশিষ্ট্য রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, বিভিন্নধরণের বিষাক্ত গ্যাস (Co2) বা বিষাক্ত পদার্থ (পারদ,সীমা) বেশী পরিমাণে শরীরে বিদ্যমান পানির কণার সাথেমিলিত হলে পানির ঝাকের মাধ্যমে আলাদা হয়ে যায়। এসববিষাক্ত উপাদানগুলো একসাথে জড় হলে স্বাভাবিক রক্তসঞ্চালন বাধাগ্রস্থ হয়, এমনকি বন্ধ হয়ে যায় এবং কোষের শক্তি ভেঙ্গে যায়, এমনকি কোষেরপচন শুরু হয়। তবে ৭ থেকে ১৪ মাইক্রোনের অদৃশ্য লোহিত রশ্মির (এফ.আই.আর) তরঙ্গব্যবহার করলে আলাদা হয়ে যাওয়া গ্যাস ও অন্যান্য বিষাক্ত উপাদানগুলো শরীর হতে বেরিয়েআসে। ফলে কোষে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সৃষ্টি হয়। মূলতঃ এটা শরীরের মধ্যে পানিরকণাকে সক্রিয় করে। ফলে এই কণাগুলো রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং রাসায়নিক পরিবর্তনেরক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

জার্মেনিয়াম (Germanium) এর কার্যকারী ভূমিকা

জার্মেনিয়াম আবিস্কারক জাপানী বৈজ্ঞানিক Dr. Kazuhiko Asai এর মতে যে সকল রোগপ্রতিরোধ করেঃ

* ক্যান্সারের প্রতিরোধ ও প্রতিকার করতে সহায়তা করে

* টিউমার প্রতিরোধ করে

* লিভারের সমস্যা সমাধান করে এবং লিভারকে শক্তিশালী করে

* মানব দেহকে স্বাভাবিক অবস্থায় রাখতে সহায়তা করে।

“The astounding result obtained through magnet therapy gives it a place of considerable importance in the field of therapeutics.”

Neville S. Bengali M.D.

“We now stand on the verge of a great new age in magnetic science and its applications- a tool that has been provided by Mother Nature herself.”  

Dr. Ralph U. Sierra

“The application of a magnetic field has the virtues of simplicity, freedom from danger and low cost. It offers the lay man or women a suitable form of self treatment for the minor ills of everyday life.”  

Dr. Evelyne Holzapfel

“This is a revolution in the therapy for muscle injuries, joint pain and posture problems. We have treated 4000 patients with whiplash injuries by means of the magnets and cured 80 percent.”

Dr. J.B.Baron, M.D.

“Every family should have a couple of magnets and know how to apply them in minor ailments and infections.”

Dr. A.K.Battacharya, M.D.

“Besides being easy, efficient and inexpensive, magnet therapy holds, furthermore, a tatal guarantee of safety.”

Dr. Louls Donnet, M.D.

“The magnetic field will in due time develop into a powerful new analytic and therapeutic tool of medicine.”

Dr. Madeleine F. Barnothy

“This is the most exciting thing I have seen since I discovered chiropractic for the first time. All chiropractors should know about magnet therapy.”

Dr. George A Rolfs

বায়োএনার্জেটিক হেলথ ব্রেসলেট ব্যবহারকারীদের ব্যবহার প্রত্যাশীদের জন্যগুরুত্বপুর্ণ তথ্যাবলীঃ বায়োএনার্জেটিক হেলথ ব্রেসলেট যেভাবে কাজ করে: ম্যাগনেটিক বাচুম্বকীয় মতবাদ অনুসারে, চুম্বকীয় আবেশ মানুষের হাতের কব্জীর চতুর্দিকে ধমনিকে কেন্দ্রকরে ঘুর্ণায়মান থাকায় চুম্বকটি রক্ত প্রবাহের উন্নতি ঘটায়। এই বৃদ্ধি প্রাপ্ত প্রবাহ রক্তের মাধ্যমেদেহকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি দেয়- যাতে প্রাকৃতিকভাবে স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটে।

বায়োএনার্জেটিক হেলথ ব্রেসলেট যাদের জন্য প্রযোজ্য হবে না: শরীরের ভিতর কোন প্রকারলৌহজাত দ্রব্য যেমন হার্টে পেসমেকার, হাড়ে রড বা লৌহপাত, ডিফাইব্রিলেটর, ইনস্যুলিনপাম্প বা অন্য কোন ইলেকট্রো মেডিকেল যন্ত্র/উপকরণের ব্যবহার থাকলে তিনি ব্যবহারকরবেন না।গর্ভাবস্থায় কোন গর্ভবতী মহিলা ব্যবহার করবেন না।

সতর্কতা/সাবধানতা: ঘড়ি কিংবা অলংকারের পার্শে অর্থাৎ একই হাতে ব্রেসলেট এবং ঘড়ি/গহনা না পরাটাই উত্তম।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া (Side effects): WHO (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা) এর মতে, স্থির চুম্বকীয় থেরাপীসম্পূর্ণ নিরাপদ- যা মোটেও কোন স্বাস্থ্য ঝুঁকির সৃষ্টি করে না। অর্থ্যাৎ ইহার যথাযথ ব্যবহারেস্বাস্থ্যগত কোন জটিলতা নেই-যা বিদ্যুতায়িত ম্যাগনেটিক থেরাপী ব্যবহার রয়েছে।

বায়োএনার্জেটিক হেলথ ব্রেসলেট ব্যবহারের মাধ্যমে যে সকল সমস্যা থেকে আমরাসমাধান পেতে পারি

* Dangerous Radiation থেকে আমাদেরকে মুক্ত রাখে, Anti Radiation হিসাবে কাজ করে

* শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

* রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে

* রক্ত কোলেস্টরল ফ্রি করে

* শরীরের যাবতীয় বিষাক্ত পদার্থ (টক্সিন) বের করে দেয়

* হরমোন উৎপাদন করে ও যৌন উদ্যম সবল করে

* ঘুমে নাক ডাকা কমায়

* ক্লান্তি/দূর্বলতা দূর করে শক্তি উজ্জীবিত করে

* নিজেকে সর্বদা ফ্রেশ এবং এনার্জেটিক মনে হয়

* অনিন্দ্রাভাব দূর করে

* ক্যান্সারের প্রতিরোধ ও প্রতিকার করতে সহায়তা করে

* টিউমার প্রতিরোধ করে

* লিভারের সমস্যা সমাধান করে এবং লিভারকে শক্তিশালী করে

* মানব দেহকে স্বাভাবিক অবস্থায় রাখতে সহায়তা করে।

আপনিও নিজের অথবা পরিবারের প্রয়োজনে ব্যবহার করে দেখুন

প্রয়োজনে হোম সার্ভিস এবং অফিসে বিশেষজ্ঞডাক্তারের

পরামর্শ অনুযায়ী ফ্রি চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে পন্য পেতে ফোন করুন-  88 01 624 624 624